ইভিএমে ভোট দেয়ার পদ্ধতি

0
1875

রাত পোহালেই রাজধানীর উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচন। এবারের নির্বাচনে সব কেন্দ্রেই ভোট গ্রহন হবে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম)। তবে অধিকাংশ ভোটারেরই অভিজ্ঞতা নেই ইভিএমে ভোট দেয়ার। তাই নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে প্রচারণা ও মক ভোটের মাধ্যমে ভোটারদেরকে ইভিএমে ভোট দিতে আগ্রহী করার পাশাপাশি কিভাবে এই মেশিনে ভোট দিতে হয় তা শেখানোর চেষ্টা করা হয়েছে।

নির্বাচন কমিশনের তথ্য মতে, একটি ইভিএম মেশিনে মোট ৬৪ জন প্রার্থীর তালিকা ও প্রতিকের ইনপুট দেয়া যায়। এছাড়া প্রতিটি মেশিনে চার হাজার ভোটার ভোট দিতে পারেন। অতিরিক্ত সময় ক্ষেপন না করলে একটি ভোট দিতে লাগবে ১৪ সেকেণ্ড সময়।

অক্ষরজ্ঞানহীন মানুষও বাটন চাপ দিয়ে ভোট দিতে পারবেন। তবে একজন ভোটারের পক্ষে একটির বেশি ভোট দেয়ার সুযোগ নেই। প্রত্যেক মেশিনেই মাইক্রোচিপ থাকে। তাই প্রতিটি ভোটের ফল তাৎক্ষণিকভাবে আগের ভোটের সাথে যোগ হয়ে যায়।

মেশিন ব্যবহারের নিয়ম: ভোটকেন্দ্রে প্রিসাইডিং কর্মকর্তা ভোটারের জাতীয় পরিচয়পত্র বা স্মার্টকার্ড, আঙুলের ছাপ, ভোটার নাম্বার যাচাই করবেন। এ সময় ভোটারের ছবি ও সংশ্লিষ্ট তথ্য মনিটরে প্রদর্শিত হবে। মনিটর দেখে পরিচয় নিশ্চিত হবেন প্রার্থীদের এজেন্টরা।

ভোটার হিসেবে সনাক্ত হওয়ার পর গোপন রুমে থাকা ইভিএম স্বয়ংক্রিয়ভাবে সচল হবে। মেয়র, সাধারণ কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদের জন্য তিনটি আলাদা ইভিএমে থাকবে গোপন রুমে। মেশিনের মনিটরে বাম পাশে থাকবে প্রার্থীর প্রতিক। ডান পাশে দেখা যাবে প্রার্থীর নাম।

পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিতে তার প্রতিকের বাম পাশে কালো বাটনে চাপ দিতে হবে। এ সময় প্রতিকে পাশে আলো জ্বলবে। যদি পছন্দের প্রার্থীর প্রতিক সঠিকভাবে চিহ্নিত করা হয় তবে ডানপাশের সবুজ বাটনে চাপ দিতে হবে। একই প্রক্রিয়ায় সব পদের জন্যও ভোট দিতে হবে।

পছন্দের প্রার্থীর প্রতিক বাছাই করতে গিয়ে ভুল হতে পারে। পছন্দের প্রতিক চিহ্নিত করতে সবুজ বাটনের পরিবর্তে লাল বাটনে চাপ দিতে হবে। এর ফলে আগে চিহ্নিত করা প্রতিকটি বাতিল হবে। সুযোগ তৈরি হবে নতুন করে ভোট দেয়ার। এরপর সঠিক প্রতিক ঠিক মত বেছে নিয়ে তার বামপাশের কালো বাটনে আবার চাপ দিতে হবে। এরপর সবুজ বাটনে চাপ দিলেই ভোট প্রদান সম্পন্ন হবে। সবুজ বাটনে চাপ দেয়ার পর যে প্রতিকে ভোট দেয়া হয়েছে সেটি ছাড়া অন্য কোন প্রতিক দেখা যাবে না। এতে নিশ্চিত হওয়া যাবে ভোটার সঠিকভাবে তার ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন।