ওরা রাজাকার

0
1449

স্বাধীনতার ৪৮ বছর পর ঘোষণা করা হলো যুদ্ধাপরাধীদের প্রথম তালিকা। মুক্তিযুদ্ধের সময় পাকিস্তানি সেনাবাহিনীকে সহায়তাকারী রাজাকার, আল বদর, আল শামস্ বাহিনীর ১০ হাজার ৭ শ’ ৮৯ জনের তালিকা প্রকাশ করা হলো।

রোববার বেলা সাড়ে ১১টায় মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ তালিকা প্রকাশ করেন আ ক ম মোজাম্মেল হক। যুদ্ধে যারা মুক্তিবাহিনীর তথ্য দিয়ে এবং রাস্তাঘাট চিনিয়ে পাকিস্তানি সেনাবাহিনীকে সহায়তা করেছে তাদের নাম এসেছে তালিকায়।

তালিকা প্রকাশের সময় মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক জানান, শিগগিরই দ্বিতীয় তালিকা প্রকাশ করা হবে।

এ সময় মন্ত্রী মন্তব্য করেন, প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধার সংখ্যা ২ লাখ ১০ হাজারের বেশি না।

এ সময় মন্ত্রী বলেন, অন্যদের নামের তালিকা শিগগিরই প্রকাশ করা হবে। প্রকাশিত তালিকাটি মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে নাম ঠিকানাসহ প্রকাশ করা হবে। তিনি বলেন, একাত্তরে প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধার সংখ্যা দুই লাখ ১০ হাজারের বেশি নয়।

তালিকা প্রস্তুত করা সম্পর্কে মন্ত্রী জানান, পাকিস্তান সরকার যাদের রাজাকার, আল বদর, আল শামস্, মুজাহিদ ও শান্তি কমিটিতে নিয়োগ দিয়েছিল তার তালিকা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে সংগ্রহ করা হয়েছে। এখানে নতুন কোন নাম যুক্ত করার সুযোগ নেই। বরং বিএনপি-জামাত ক্ষমতায় থাকার সময় অনেক রাজাকার ও আল বদরের নাম তালিকা থেকে সরিয়ে ফেলা হয়েছে।

মন্ত্রী জানান, বিভিন্ন জেলার সেসময়ের রেকর্ড রুম এবং বিজি প্রেসে ছাপানো তালিকাও সংগ্রহের চেষ্টা চলছে। যাচাই বাছাই করে ধাপে ধাপে আরও তালিকা প্রকাশ করা হবে।