করোনা ভাইরাস সম্পর্কে…

0
887

বাংলাদেশ ষড়ঋতুর দেশ। ভিন্ন সময়ে ভিন্ন আবহাওয়া বিরাজ করে। মৌসুম বদলের সাথে সাধারণত ফ্লু বা ইনফ্লুয়েঞ্জার প্রভাব বা প্রকোপ দেখা দিতে পারে। কিন্তু পরিতাপের বিষয় এই সময়ে যুক্ত হয়েছে করোনা ভাইরাসের আতংক।

করোনার সাধারণ লক্ষণের সাথে ইনফ্লুয়েঞ্জার লক্ষণের অনেক মিল রয়েছে। আবার ব্যাপক অমিলও রয়েছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা করোনা ও সাধারণ ফ্লু নিয়ে নতুন করে তথ্য প্রকাশ করেছে।

দুই রোগের মিলের জায়গা:

দুই রোগের অমিলের জায়গা

যা করণীয়: যদি সর্দি–কাশি–জ্বর দেখা দেয়, আতংকিত হবেন না। আপনার করোনা সংক্রমিত ব্যক্তির সংস্পর্শে আসার কোনো ইতিহাস বা ঝুঁকি না থাকে তাহলে আপনি নিরাপদ। এছাড়া  আপনি যদি ঝুঁকিপূর্ণ ব্যক্তিদের তালিকায় না থাকেন, তাহলে উদ্বিগ্ন হবেন না। জ্বরের জন্য প্যারাসিটামল, প্রচুর পানি ও তরল পান, পুষ্টিকর খাবার গ্রহণ  বিশেষ করে ভিটামিন সি টাইপের  ফল আর বিশ্রামই আপনার চিকিৎসা। 

তবে যদি জ্বর পাঁচ-সাত দিনেও না সারে, শ্বাসকষ্ট দেখা দেয় বা রোগীর দ্রুত অবস্থার অবনতি ঘটে, তাহলে চিকিৎসকের সঙ্গে যোগাযোগ করুন। এবং চিকিৎসকের পরামর্শ মেনে চলুন। আর যদি আপনি ঝুঁকিপূর্ণ ব্যক্তি হন, সম্প্রতি বিদেশফেরত বা আক্রান্ত ব্যক্তির সংস্পর্শে গিয়ে থাকেন, তবে উপসর্গ দেখা দেওয়া মাত্র সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা সংস্থা আইইডিসিআরের হটলাইনে যোগাযোগ করুন।

 লেখক: ডা. বিদ্যুৎ বড়ুয়া, জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ 

MBBS ( DMC) MD. MPH. MSc ( Sweden) FRSH ( UK)

সহকারী অধ্যাপক; জনস্বাস্থ্য বিভাগ, আমেরিকাল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ 

drbbaruabd@gmail.com