করোনা: সামাজিক সংক্রমণ ঠেকানো গেল না

0
313

গত ২৪ ঘন্টায় দেশে নতুন করে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১ হাজার ৪১ জন। বর্তমানে করোনা রোগীর মোট সংখ্যা ১৮ হাজার ৮৬৩ জন। গত ২৪ ঘন্টায় মারা গেছেন ১৪ জন। এ নিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা ২৮৩ জন। এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৩ হাজার ৩৬১ জন। তবে ২৪ ঘন্টায় কোন সুস্থতা নেই।

বৃহস্পতিবার দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদফতরের করোনা ভাইরাস সংক্রান্ত নিয়মিত অনলাইন লাইভ ব্রিফিংয়ে অধিদদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডাক্তার নাসিমা সুলতানা এসব তথ্য জানান।

তিনি জানান, গতকালের চেয়ে আজ ১২১ জন কম আক্রান্ত হয়েছেন। গতকাল আক্রান্ত হয়েছিলেন ১ হাজার ১৬২ জন।

নাসিমা সুলতানা জানান, করোনা ভাইরাস শনাক্তে গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ৭ হাজার ৮৩৭টি। আগের দিন নমুনা সংগ্রহ হয়েছিল ৭ হাজার ৮৬২টি। নমুনা সংগ্রহ আগের দিনের চেয়ে ২৫টি কম। গত ২৪ ঘন্টায় দেশের ৪১টি পরীক্ষাগারে নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৭ হাজার ৩৯২টি। আগের দিন নমুনা পরীক্ষা হয়েছিল ৭ হাজার ৯শ’টি। গতকালের চেয়ে নমুনা পরীক্ষা ৫০৮টি কম। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ১ লাখ ৫১ হাজার ৯৩০টি।

নাসিমা সুলতানা বলেন, গত ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনা ভাইরাস শনাক্তের পর বর্তমানে দশম সপ্তাহ চলছে। দশম সপ্তাহের মেয়াদকাল ১০ থেকে ১৬ মে পর্যন্ত। অর্থাৎ এ সপ্তাহ শেষ হতে এখনও ২ দিন বাকি। তবে অষ্টম সপ্তাহের তুলনায় দশম সপ্তাহের দুই দিন বাকি থাকতেই আক্রান্ত বেড়েছে প্রায় তিনগুণ ও মৃত্যু বেড়েছে প্রায় দ্বিগুণ।

অতিরিক্ত মহাপরিচালক জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে রাখা হয়েছে ২০১ জনকে। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ২ হাজার ৫৭০ জন। ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশন থেকে ছাড়া পেয়েছেন ৬৬ জন, এখন পর্যন্ত ছাড় পেয়েছেন ১ হাজার ৩৯৮ জন।

তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় প্রাতিষ্ঠানিক ও হোম কোয়ারেন্টাইন মিলে কোয়ারেন্টাইন করা হয়েছে ৩ হাজার ৩১ জনকে। এখন পর্যন্ত ২ লাখ ৩০ হাজার ৬৭৩ জনকে কোয়ারেন্টাইন করা হয়েছে। কোয়ারেন্টাইন থেকে গত ২৪ ঘণ্টায় ছাড়া পেয়েছেন ২ হাজার ২৯৮ জন, এখন পর্যন্ত ছাড়া পেয়েছেন ১ লাখ ৮৪ হাজার ৬৫৯ জন। বর্তমানে মোট কোয়ারেন্টাইনে আছেন ৪৬ হাজার ১৪ জন।

ডা.নাসিমা সুলতানা জানান, দেশের বিমানবন্দর, স্থল, নৌ ও সমুদ্রবন্দর দিয়ে গত ২৪ ঘন্টায় ১ হাজার ৪০৪ জনসহ সর্বমোট বাংলাদেশে আগত ৬ লাখ ৮৫ হাজার ৫০৭ জনকে স্কিনিং করা হয়েছে।

দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার পরিস্থিতি তুলে ধরে তিনি জানান, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ১৩ মে পর্যন্ত রিপোর্ট অনুযায়ী ২৪ ঘন্টায় দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৫ হাজার ৩১ জন। এ পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ১০ হাজার ৯৩২ জন। ২৪ ঘন্টায় মারা গেছেন ১৪৯ জন এবং ৩ হাজার ৭৪৬ জন মারা গেছেন।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ১৩ মে পর্যন্ত রিপোর্ট অনুযায়ী সারাবিশ্বে ২৪ ঘন্টায় করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৮১ হাজার ৫৭৭ জন। এ পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৪১ লাখ ৭০ হাজার ৪২৪ জন। ২৪ ঘন্টায় মারা গেছেন ৪ হাজার ২৪৫ জন এবং এ পর্যন্ত ২ লাখ ৮৭ হাজার ৩৯৯ জন।