ক্ষুব্ধ ইশরাক

0
829
রোববার রাজধানীর নয়াপল্টনে আনন্দ কমিউনিটি সেন্টারে বিএনপির মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন পরাজিত মেয়র প্রার্থী ইশরাক হোসেন

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপি নেতা-কর্মীদের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন প্রকৌশলী ইশরাক হোসেন। বিএনপি মনোনীত এই মেয়র প্রার্থী দলীয় নেতাদের আচরণে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। বলেছেন, নির্বাচনের দিন যারা মাঠে থাকার চেষ্টা করেছে তাদের সংগঠিত করতে কেউ ছিলেন না।

রোববার রাজধানীর নয়াপল্টনে আনন্দ কমিউনিটি সেন্টারে আয়োজিত সভায় বিএনপির প্রয়াত নেতা ও ঢকা সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকার ছেলে ইশরাক হোসেন এসব কথা বলেন। সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীদের নিয়ে এই মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটি সদস্য ডক্টর খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মির্জা আব্বাস, ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু, যুগ্ম মহাসচিব ও ঢাকা মহানগর (দক্ষিণ)-এর সাধারণ সম্পাদক হাবিব-উন-নবী খান সোহেলসহ অন্যান্য নেতারা।

পরাজিত মেয়র প্রার্থী ইশরাক হোসেন বলেন, নির্বাচনের দিন কার কি ভূমিকা ছিল তা নাম উল্লেখ করে বলার দরকার নেই। ভোট গ্রহনের সময় আমি নিজে বিভিন্ন কেন্দ্র ঘুরে দেখেছি। পরিস্থিতি দেখেছি। মুখের আশ্বাস আর বাস্তব পরিস্থিতির মধ্যে আকাশ পাতাল তফাৎ লক্ষ্য করেছি।

ইশরাক বলেন, স্থানীয় কিছু নেতা নির্বাচনের দিন মাঠে থাকার চেষ্টা করেছিলেন। তাদের সংগঠিত করার জন্য কেউ ছিল না। কিছু জায়গায় কাউন্সিলর প্রার্থীদের দেখেছি মাঠে থাকার। আবার অনেক জায়গায় দেখেছি কাউন্সিলর প্রার্থীও মাঠে নেই। কেউ ঝুঁকি নিবে, আবার কেউ ঘুমিয়ে থাকবে সেটা হতে পারে না। এভাবে আমাদের সাফল্য আসবে না।

বিএনপি মনোনীত কাউন্সিলর প্রার্থীদের উদ্দেশ্য করে ইশরাক বলেন, দেশে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনা ও বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করাই ছিল নির্বাচনে অংশ নেয়ায় আমাদের মূল উদ্দেশ্য। আমরা যদি সংগঠিত হতে না পারি এবং আগামী দিনে আন্দোলনকে জোরদার করতে না পারি তাহলে আমাদের প্রাণপ্রিয় নেত্রীকে খুব শিগগিরই মুক্ত করতে পারবো না।

ইশরাক হোসেনের বক্তব্য দেয়ার সময় কোন কোন নেতাকে বিব্রত হতে দেখা যায়। কেন্দ্রীয় নেতারা পরে বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি আন্দোলনকে বেগবান করতে নেতা-কর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান।