গণমাধ্যম মালিকদের প্রতি তথ্যমন্ত্রীর আহ্বান

সদসদের মাঝে সুনক্ষা সামগ্রি বিতরণ করেছে ডিইউজে

0
246

করোনার সম্মুখ যোদ্ধা হিসেবে গণমাধ্যমকর্মীদের কাজে পাঠানোর আগে পর্যাপ্ত স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী দেয়ার জন্য প্রতিষ্ঠান মালিকদের প্রতি আহবান জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডক্টর হাছান মাহমুদ।

মঙ্গলবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের (ডিইউজে) সদস্যদের মাঝে স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ উদ্বোধন সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ আহবান জানান।

হাছান মাহমুদ বলেন, সাংবাদিকরা করোনা মোকাবেলায় সম্মুখ যোদ্ধা। প্রতিটি গণমাধ্যম প্রতিষ্ঠান প্রধানদের প্রতি আমার বিনীত অনুরোধ, গণমাধ্যমকর্মীদের পর্যাপ্ত সুরক্ষা সামগ্রী দিয়ে তারপর কাজে পাঠান। তা না হলে করোনায় আক্রান্তের সুযোগ থাকে।

মন্ত্রী করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় সম্মুখ যোদ্ধা হিসেবে চিকিৎসক-নার্স, পুলিশ, সেনাবাহিনী, গণমাধ্যমকর্মী ও দায়িত্বপালনরত সকলকে অভিনন্দন জানান। তিনি সম্প্রতি প্রয়াত তিন সাংবাদিকের আত্মার শান্তি কামনা ও করোনায় আক্রান্ত প্রায় একশ’ সাংবাদিকের দ্রুত আরোগ্য কামনা করেন।

তথ্যমন্ত্রী জানান, গণমাধ্যমের কর্মীদের জন্য বিএসএমএমইউ’তে করোনা টেস্টে ‘ফাস্ট ট্রাক’ বা অগ্রাধিকার সুবিধার জন্য তিনি যে অনুরোধ করেছিলেন বিএসএমএমইউ তা কার্যকর করেছে।

গণমাধ্যমকর্মীদের করোনা চিকিৎসায় শয্যা সংরক্ষণে সাংবাদিকদের অনুরোধে অন্য একটি হাসপাতালে এ নিয়ে কথা বলবেন বলে জানান তথমন্ত্রী।

ডিইউজে সভাপতি কুদ্দুস আফ্রাদের সভাপতিত্বে সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) সাবেক সভাপতি মনজুরুল আহসান বুলবুল, বর্তমান সভাপতি মোল্লা জালাল, মহাসচিব শাবান মাহমুদ এবং জাতীয় প্রেসক্লাব সভাপতি সাইফুল আলম। এসময় কয়েকজন ডিইউজে সদস্যের হাতে স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী তুলে দেন তথ্যমন্ত্রী।

সাংবাদিকরা ‘করোনায় প্রত্যেক মৃত্যুর জন্য সরকার দায়ী’ বিএনপি’র এমন মন্তব্যের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করলে তথ্যমন্ত্রী বলেন, আমি অপেক্ষায় আছি, বিএনপি নেতারা কখন বলবেন যে, করোনা ভাইরাসের জন্যও সরকার দায়ী!

মন্ত্রী বলেন, সমগ্র বিশ্ব আজ করোনায় থমকে গেছে। ইউরোপ-আমেরিকায় তারা প্রাণহানি ঠেকাতে পারছে না। বিশ্বে এ প্রাদুর্ভাব দেখার সাথে-সাথেই আমাদের সরকার নানা ব্যবস্থা নেয়ায় অনেক উন্নত ও প্রতিবেশী দেশের তুলনায় আমাদের অবস্থা ভালো আছে। কিন্তু তাই বলে আমরা বসে নেই। যে কোনো পরিস্থিতি হতে পারে, তা মাথায় রেখেই সরকার সমস্ত প্রস্তুতি নিচ্ছে।

হাছান মাহমুদ বলেন, প্রকৃতপক্ষে, দেশের এক-তৃতীয়াংশ মানুষকে সরকারি সহায়তার আওতায় আনা, মানুষের জীবনরক্ষায় নানা কর্মতৎপরতা চালানোসহ সরকারের বিভিন্ন পদক্ষেপে দিশেহারা হয়ে বিএনপি কিছু ফটোসেশন করছে এবং সেখানে নানা কথাবার্তা বলে সরকারের কাজকে বাধাগ্রস্ত করার চেষ্টা করছে।

তিনি বলেন, আসলে রুহুল কবির রিজভী আহমেদসহ অনেক বিএনপি নেতার কথা শুনে সেগুলো উদভ্রান্তের প্রলাপের মতো মনে হয়।

ডিইউজে সভাপতি কুদ্দুছ আফ্রাদ আর্ট নিউজকে জানিয়েছেন, সুরক্ষা সামগ্রি বিতরণ কার্যক্রম আজ শুরু হয়েছে। আগামী ২/৩ দিন এই কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।