চলতি মাসেই নিউজ পোর্টালের নিবন্ধন

0
797

তথ্যমন্ত্রী ডক্টর হাছান মাহমুদ জানিয়েছেন চলতি মাসেই প্রথম ধাপে অনলাইন নিউজ পোর্টালের নিবন্ধন দেয়া হবে। নিবন্ধন দেয়ার পর অনলাইন পত্রিকায় শৃঙ্খলা ফিরবে বলে আশা করছেন তিনি। তথ্যমন্ত্রী বললেন, দৈনিক পত্রিকার প্রচার সংখ্যার বর্তমান অবস্থারও পরিবর্তন দরকার। তিনি আরও বললেন, সবার আগে সংবাদ দেয়ার প্রতিযোগিতা করতে গিয়ে সংবাদের গুণগত মান কমেছে।

বুধবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে প্রেস ইনস্টিটিউট বাংলাদেশ, পিআইবি’র প্রয়াত মহাপরিচালক শাহ আলমগীর স্মরণে ‘স্বপ্নের সারথি শাহ আলমগীর’ বইয়ের প্রকাশনা অনুষ্ঠানে তথ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

ডক্টর হাছান মাহমুদ জানান, ইতোমধ্যেই একশ’টির মত অনলাইন পত্রিকার গোয়েন্দা প্রতিবেদন পাওয়া গেছে। এসব প্রতিবেদনের ভিত্তিতে চলতি মাসের ১৭ তারিখের পর প্রথম ধাপে নিবন্ধন দেয়া হবে। মন্ত্রী জানান, অনলাইন পত্রিকার পাশাপাশি অনলাইন টেলিভিশন (আইপি টিভি)-এর নিবন্ধন দেয়ার বিষয়টিও প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, দেশের গণমাধ্যমের ব্যাপক বিকাশ হয়েছে। কিন্তু সবার আগে সংবাদ প্রকাশের প্রতিযোগিতা করতে গিয়ে সংবাদের গুণগত মান কমেছে। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এই প্রতিযোগিতার কারণে অনেক সময় বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতা হয়ে ওঠে না। অনেক সময় ভুল সংবাদ পরিবেশিত হয়। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় কর্মশালা আয়োজনের জন্য পিআইবি ও প্রেস কাউন্সিলকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে বলেও জানান তথ্যমন্ত্রী ডক্টর হাছান মাহমুদ।

দৈনিক পত্রিকাগুলোর প্রচার সংখ্যা নিয়ে হতাশা প্রকাশ করেন তথ্যমন্ত্রী। বলেন, পত্রিকার প্রচার সংখ্যার হ য ব র ল অবস্থা। এ অবস্থার উত্তরণ দরকার। তিনি বলেন, বর্তমানে প্রচার সংখ্যার যে অবস্থা, তাতে দেখা যায়… অনেক অখ্যাত পত্রিকাও দেখায় তাদের প্রচার সংখ্যা প্রতিষ্ঠিত পত্রিকার চেয়ে বেশি সার্কুলেশন। এ অবস্থার পরিবর্তন প্রয়োজন বলে মনে করেন তথ্যমন্ত্রী ডক্টর হাছান মাহমুদ।

এ সময় তথ্যমন্ত্রী বলেন, পিআইবি’র প্রয়াত মহাপরিচালক শাহ আলমগীর বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতার জন্য আমৃত্যু কাজ করে গেছেন। তিনি সাংবাদিকদের মাঝে পেশাদারিত্ব তৈরি জন্য কাজ করে গেছেন।