জাল গুটিয়ে আনা হচ্ছে

র্যাবের হেফাজতে একজন, আরেকজন পুলিশের নজরদারিতে

0
1644

কুর্মিটোলায় সংঘটিত গণধর্ষণে সম্পৃক্ত থাকার সন্দেহে র‌্যাব একজনকে আটক করেছে। আটক ব্যক্তি ঘটনার সাথে সম্পৃক্ত থাকার বিষয়টি এখনও নিশ্চিত না বলে তার পরিচয় প্রকাশ করা হয়নি।

মঙ্গলবার রাতে একটি টেলিভিশন চ্যানেলকে এই তথ্য জানান র‌্যাবের একজন শীর্ষ পর্যায়ের কর্মকর্তা। পরে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানানো হবে বলে উল্লেখ করেন। তার তথ্য মতে, গাজীপুরের টঙ্গী থেকে ওই তরুণকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুর থেকে আটক তরুণ র‌্যাবের হেফাজতে আছে।

র‌্যাব কর্মকর্তা জানান, আজ বুধবার সকালে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে বিস্তারিত জানানো হবে।

এদিকে, পুলিশ সূত্র বলছে, ভিক্টিমের বর্ণনা ও ঘটনাস্থলের আশপাশে থাকা সিসিটিভি ফুটেজ দেখে একজনকে সনাক্ত করা গেছে। সনাক্ত ব্যক্তি পুলিশের কঠোর নজরদারিতে রয়েছে। অপরাধে তার সম্পৃক্ততার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেলেই তাকে আটক করা হবে।

পুলিশের নজরদারিতে থাকা ব্যক্তি সিএনজি চালিত অটোরিকশা চালক বলে জানাচ্ছে র‌্যাবের আরেকটি সূত্র। ধারণা করা হচ্ছে, পুলিশ ও র‌্যাবের একাধিক টিম ওই ব্যক্তিকে সনাক্ত করেছে।

রোববার রাতে বান্ধবীর বাসায় যাওয়ার পথে ভুল করে শেওড়ার পরিবর্তে কুর্মিটোলায় বাস থেকে নেমে পরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন ছাত্রী। তাকে সেখান থেকে তুলে নিয়ে গণধর্ষণ করা হয়। বর্তমানে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।