জ্বর নিয়ে বাড়ি যাওয়ায়

স্বামীকে ঘরে জায়গা দিল না স্ত্রী

0
472

কাবিল উদ্দিন। পেশায় দিনমজুর। রাজধানীতে দিনমজুরী করে টাকা পাঠান বাড়িতে। সে টাকায় সংসার চলেছে এতোদিন। করোনা ভাইরাসের কারণে সারাদেশ অচল। কাজ নেই। এর মধ্যেই এসেছে জ্বর। জ্বর নিয়ে বাড়ি ফিরে গেলেন কাবিল উদ্দিন। কিন্তু সেখানে তাকে স্বাগত জানানো হলো না। বের করে দেয়া হলো ঘর থেকে।

সোমবার সকালে কাবিল উদ্দিন বাড়ি ফেরেন। তার বাড়ি বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার কেশরতা গ্রামে। ট্রাকে চেপে বাড়ি ফেরেন কাবিল।

দুপুরে কাবিলের জ্বরের কথা জানতে পারেন তার স্ত্রী। এরপরই ঘটে বিপত্তি। কাবিলকে তার স্ত্রী ঘর থেকে বের করে দরজা বন্ধ করে দেন। ঘটনা জানাজানি হতে সময় লাগেনি। পুরো গ্রামে হইচই শুরু হয়। গ্রামবাসীর মনে হলো কাবিল করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত।

খবর পৌঁছায় আদমদীঘি সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জিল্লুর রহমানের কাছে। তিনি উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাক্তার শহীদুল্লাহ দেওয়ানকে ঘটনাটি জানান। বিকেলে মেডিকেল টিম নিয়ে ডাক্তার শহীদুল্লাহ যান কাবিলের বাড়ি।

কাবিলকে ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ দেন ডাক্তার শহীদুল্লাহ। এরপর কাবিলের জন্য পৃথক টয়লেট স্থাপন করে দেয়া হয়েছে। এছাড়া তার বাড়িতে লাল পতাকা টানিয়ে দেয়া হয়েছে।

কাবিল উদ্দিনের পরিবারের ১৪ দিনের খাবারের দায়িত্ব নিয়েছেন ইউপি চেয়ারম্যান জিল্লুর রহমান।