তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে

0
1044

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক দুঃখ প্রকাশ করে বলেছেন, রাজাকারের তালিকায় মুক্তিযোদ্ধাদের নাম আসার মত যে ভুল হয়েছে তার দায় এড়ানোর কোন সুযোগ নেই। ত্রুটি বিচ্যুতি বেশি হলে তালিকা প্রত্যাহার হবে। তিনি বলেন, তালিকায় মুক্তিযোদ্ধাদের নাম কিভাবে এলো তা তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে। তবে তিনি এমন কাজের জন্য পদত্যাগ করার বিষয়ে কোন মন্তব্য করেননি।

মঙ্গলবার রাজধানীর শিল্পকলা একাডেমিতে ‘মুক্তিযুদ্ধ এবং আমি’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

১৯৭১ সালে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তৈরি করা রাজাকারদের তালিকা মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রণালয় হুবুহু প্রকাশ করেছে। এ তালিকা আগেই তৈরি করা ছিল। সেখানে কোন ইল-মোটিভ থাকতে পারে। উদ্দেশ্যমূলকভাবে এটি করা হয়ে থাকতে পারে… আ ক ম মোজাম্মেল হক এভাবেই তার ব্যাখ্যা দিলেন। তিনি জানান, “আমরা এটা এডিট করি নাই, দাড়ি-কমা, সেমিকোলন চেঞ্জ করি নাই।”

তিনি আবারও উল্লেখ করেন, “অত্যন্ত বিনয়ের সাথে বলছি, এই তালিকা আমরা তৈরি করি নাই। জাতির দাবি ছিল, তাই প্রকাশ করেছি। আমি স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে করি নাই। দুঃখ প্রকাশ করা আর ক্ষমা চাওয়ার মধ্যেতো কোন পার্থক্য নাই। …নিঃসন্দেহে এটা ক্ষমার চোখে দেখবেন। আমি এই কাজ না করেও দায় দায়িত্ব গ্রহণ করলাম। এরপরেও যদি পছন্দ না হয় আদালতে যেতে পারেন। আমার নাম এলে যেভাবে কষ্ট পেতাম, ঠিক ওইভাবে ওনারা কষ্ট পেয়েছেন। সেজন্য আমি ব্যথিত, আমিও কষ্ট পেয়েছি।”