প্রতিদিনই আক্রান্তের নতুন রেকর্ড হচ্ছে

0
290

দেশে গত ২৪ ঘন্টায় সর্বাধিক ১ হাজার ৮৭৩ জনের দেহে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এটি একদিনে সর্বোচ্চ আক্রান্তের রেকর্ড। এছাড়া গত ২৪ ঘন্টায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ২০ জনের মৃত্যু হয়েছে। দেশে এ পর্যন্ত এ ভাইরাসে মৃত্যুবরণ করেছেন ৪৫২ জন। বর্তমানে এ ভাইরাসে শনাক্ত ৩২ হাজার ৭৮ জন রোগী রয়েছে। আক্রান্তদের মধ্যে এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৬ হাজার ৪৮৬ জন। গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ হয়েছেন ২৯৬ জন।

শনিবার দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদফতরের করোনা ভাইরাস সংক্রান্ত নিয়মিত অনলাইন লাইভ ব্রিফিংয়ে অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডাক্তার নাসিমা সুলতানা এসব তথ্য জানান।

তিনি জানান, মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে ১৬ জন পুরুষ এবং ৪ জন নারী। এর মধ্যে ঢাকা বিভাগের ৪ জন, চট্টগ্রাম বিভাগের ৮ জন, রংপুর বিভাগের ২ জন, সিলেট বিভাগের ১ জন, ময়মনসিংহ বিভাগের ২ জন, রাজশাহী বিভাগের ২ জন এবং খুলনা বিভাগে ১ জন রয়েছেন। ২০ জনের মধ্যে হাসপাতালে মারা গেছেন ১৫ জন, বাড়িতে মারা গেছেন ৪ জন এবং মৃত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয় ১ জনকে।

মৃত্যুবরণকারীরা ৭১ থেকে ৮০ বছরের মধ্যে ১ জন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে ৩ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ৮ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে ৩ জন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে ৩ জন এবং ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে ২ জন রয়েছেন।

তিনি জানান, গতকালের চেয়ে আজ ১৭৯ জন বেশি আক্রান্ত হয়েছেন। গতকাল আক্রান্ত হয়েছিলেন ১ হাজার ৬৯৪ জন।

নাসিমা সুলতানা জানান, করোনা ভাইরাস শনাক্তে গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ৯ হাজার ৯৭৭টি। আগের দিন নমুনা সংগ্রহ হয়েছিল ৯ হাজার ৯৯৩টি। গতকালের চেয়ে আজ ১৬টি নমুনা কম সংগ্রহ করা হয়েছে। গত ২৪ ঘন্টায় ৪৭টি পরীক্ষাগারে নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ১০ হাজার ৮৩৪টি। গত ২৪ ঘন্টায় আগের দিনের চেয়ে ১ হাজার ১০৭টি বেশি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। এ পর্যন্ত মোট নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ২ লাখ ৩৪ হাজার ৬৭৫টি।

অতিরিক্ত মহাপরিচালক জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে রাখা হয়েছে ২৮৬ জনকে। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ৪ হাজার ৩০৫ জন। ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশন থেকে ছাড় পেয়েছেন ৪১ জন। এখন পর্যন্ত আইসোলেশন থেকে মোট ছাড় পেয়েছেন ২ হাজার ৬৯ জন।

নাসিমা সুলতানা জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় প্রাতিষ্ঠানিক ও হোম মিলে কোয়ারেন্টাইন করা হয়েছে ২ হাজার ৩২২ জনকে। এখন পর্যন্ত ২ লাখ ৬০ হাজার ৪১৬ জনকে কোয়ারেন্টাইন করা হয়েছে। কোয়ারেন্টাইন থেকে গত ২৪ ঘণ্টায় ছাড়া পেয়েছেন ২ হাজার ৮৮ জন, এখন পর্যন্ত মোট ছাড় পেয়েছেন ২ লাখ ৫ হাজার ২৫৯ জন। বর্তমানে মোট কোয়ারেন্টাইনে আছেন ৫৫ হাজার ১৫৭ জন।

ডা.নাসিমা সুলতানা জানান, দেশের বিমানবন্দর, নৌ, সমুদ্রবন্দর ও স্থলবন্দর দিয়ে গত ২৪ ঘন্টায় আগত ১ হাজার ৩৭০ জনসহ সর্বমোট বাংলাদেশে আগত ৬ লাখ ৯৪ হাজার ৬৭৫ জনকে স্কিনিং করা হয়েছে।