বাপ্পীর জানাজা সংসদের দক্ষিণ প্লাজায়

0
1362

প্রয়াত সাবেক সংসদ সদস্য ফজিলাতুন নেসা বাপ্পীর মরদেহ বেলা ৩টায় জাতীয় সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজায় নেয়া হবে। সেখানে সাড়ে ৩টায় তার নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হবে।

এর আগে, বেলা ১১টার দিকে মোহাম্মদপুর জাপান গার্ডেন সিটির বাসায় মরদেহ নেয়া হয়। সেখান থেকে দুপুরে আনা হয় সুপ্রিম কোর্ট প্রাঙ্গণে।

বাপ্পীর মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি মোহাম্মদ আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরিন শারমীন চৌধুরী, অর্থমন্ত্রী আ. হ. ম. মোস্তফা কামাল গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। পৃথক পৃথক বিবৃতিতে তারা ফজিলাতুন নেসা বাপ্পীর বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করেন।

বৃহস্পতিবার সকাল ৮টায় মারা যান সদালাপী এই রাজনীতিক। শ্বাসকষ্ট ও নিউমোনিয়া আক্রান্ত বাপ্পীকে শনিবার হাসপাতাল ভর্তি করা হয়। হাসপাতালে শ্বাসকষ্ট, নিউমোনিয়া ও লাং ইনফেকশনের চিকিৎসা করা হয়। সোমবার জানা যায়, তিনি এভিয়েন ইনফ্লুয়েঞ্জায় (সোয়াইন ফ্লু) আক্রান্ত হয়েছেন।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. কনক কান্তি বড়ুয়া জানান, স্বাভাবিকভাবে শ্বাস নিতে না পারার কারণে তাকে লাইফ সাপোর্ট দেয়া হয়েছিল।

অ্যাডভোকেট ফজিলাতুন নেসা বাপ্পী ডেপুটি অ্যাটর্ণি জেনারেল ও আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি আমৃত্যু জাতীয় মহিলা সংস্থা পরিচালনা পরিষদের সদস্য ছিলেন।

নবম ও দশম জাতীয় সংসদে সংরক্ষিত আসনের সদস্য ছিলেন ফজিলাতুন নেসা বাপ্পী। শিক্ষাজীবনে তিনি ছাত্রলীগের সক্রিয় কর্মী ছিলেন। পরে আওয়ামী যুবলীগের সাথে সম্পৃক্ত হন।

তার বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার পশ্চিম পাইকপাড়ায়। স্বামী শেখ রফিকের বাড়ি নড়াইলে। ফজিলাতুন নেসা বাপ্পীর একমাত্র মেয়ে লন্ডনে থাকেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল মাত্র ৪৯ বছর ২ দিন।