বেতন নেবেন না য়্যূভেন্তুসের খেলোয়াড়রা

0
411

করোনায় নাস্তানাবুদ অবস্থা ইতালিয়ান সিরি ‘আ জায়ান্ট য়্যূভেন্তুসের। নির্ভরযোগ্য খেলোয়াড় দিবালা ও রুগিন করোনা ভাইরাস পজেটিভ হয়েছেন। অধিকাংশ খেলোয়াড়কে যেতে হয়েছে কোয়ারেন্টাইনে। লীগের খেলা বন্ধ। এতে বড় ধরনের আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়েছে ক্লাবটি। ক্লাবের এই পুষিয়ে নিতে এগিয়ে এসেছেন কোচিং স্টাফ ও খেলোয়াড়রা। তারা সিদ্ধান্ত নিয়েছেন চার মাসের বেতন না নেয়ার।

য়্যূভেন্তুসের কোচ মাউরিসিও সারি জানিয়েছেন, সিআর সেভেনসহ ক্লাবের প্রত্যেক খেলোয়াড় ও কোচিং স্টাফরা চার মাসের বেতন না নেয়ার কথা জানিয়েছেন ম্যানেজমেন্টকে।

খেলোয়াড় ও কোচিং স্টাফদের চার মাসের বেতন মানে ৯০ মিলিয়ন ইউরো, বাংলাদেশের টাকার মানে প্রায় সাড়ে ৮০০ কোটি টাকা।

ক্লাবের পক্ষ থেকেও আনুষ্ঠানিকভাবে বিষয়টি প্রকাশ করা হয়েছে। জানানো হয়েছে, করোনার সংক্রমণ এড়াতে সূচিতে থাকা নব খেলা স্থগিত করেছে য়ূভেন্তুস। ফলে বিশাল অঙ্কের আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়েছে ক্লাব। সে ক্ষতির কথা বিবেচনা করে ক্লাবের মূল দলের খেলোয়াড় ও কোচিং স্টাফরা মার্চ মাস থেকে জুন মাস পর্যন্ত মোট চার মাসের বেতন নিবেন না।

খেলোয়াড় ও কোচিং স্টাফদের এমন সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে ক্লাব কর্তৃপক্ষ। বলেছে, এমন কঠিন সময়ে এ ধরনের সিদ্ধান্ত নেয়ায় খেলোয়াড় ও কোচিং স্টাফদের ক্লাবের পক্ষ থেকে ধন্যবাদ।

উল্লেখ্য, করোনার কারণে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ইতালি। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ১০ হাজারেরও বেশি মানুষ মারা গেছেন করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত হয়ে। আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় এক লাখ মানুষ।

এদিকে, য়্যূভেন্তুসের তারকা খেলোয়াড় ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো তার চার মাসের বেতন ছেড়ে দেয়ার পাশাপাশি নিজ দেশ পর্তুগালেও দিয়েছেন অর্থ সহায়তা। সিআর সেভেন ও তার এজেন্ট হোর্হে মেন্দেস এক মিলিয়ন ইউরো দান করেছেন পর্তুগালের দুইটি হাসপাতালে।