রাজধানীর কোন এলাকায় কতো আক্রান্ত

0
304

দেশে বর্তমানে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ১০ হাজার ১৪৩ জন। এদের অধিকাংশই রাজধানীর। সারা দেশে শনাক্ত হওয়া রোগীদের ৫৬ শতাংশই ঢাকা মহানগর এলাকার।

সোমবার রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইইডিসিআর) এমন তথ্যই দিয়েছে। তাদের দেয়া তথ্য অনুযায়ী রাজধানীর ১৭০টি এলাকায় করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে।

রোববার পর্যন্ত রাজধানীর সবচেয়ে বেশি করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে রাজারবাগে। শুধু রাজারবাগ পুলিশ লাইনেই আক্রান্ত হয়েছেন ১৬৫ জন পুলিশ সদস্য। রাজারবাগের পাশের এলাকা কাকরাইলে শনাক্ত হয়েছেন ১৫০ জন।

তৃতীয় সর্বোচ্চ রোগী শনাক্ত হয়েছে যাত্রাবড়ি এলাকায়। সেখানে আক্রান্ত হয়েছেন ১০১ জন। এর পরেই রয়েছে লালবাগ এলাকা। সেখানে শনাক্ত হয়েছে ৭৮ জন। পাশের মালিবাগে আক্রান্ত হয়েছেন ৬২ জন।

তবে বৃহত্তর থানা এলাকা বিবেচনা করলে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হয়েছে মিরপুরে। সেখানে আক্রান্তের সংখ্যা দেড় শতাধিক।

আইইডসিআর-এর হিসেব অনুযায়ী, মিরপুর ১ নম্বর সেকশনে ৩২ জন, ২ নম্বর সেকশনে ২ জন, ৬ নম্বর সেকশনে ৯ জন, ১০ নম্বর সেকশনে ১৮ জন, ১১ নম্বর সেকশনে ৩২ জন, ১২ নম্বর সেকশনে ১৮ জন, ১৩ নম্বর সেকশনে ৩ জন এবং ১৪ নম্বর সেকশনে ৩৭ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

এছাড়া রাজধানীর পুরনো অংশের মুগদায় ৮০, বংশালে ৫৮, গেণ্ডারিয়ায় ৪৮, মগবাজারে ৪৩, ওয়ারিতে ৪২, খিলগাঁওয়ে ৩৯, হাজারীবাগে ৩৮, মিটফোর্ডে ৩৮, স্বামীবাগে ৩৬, বাসাবোতে ৩৪, চকবাজারে ৩২, জুরাইনে ৩২, চানখাঁরপুলে ৩১, নয়া পল্টনে ২৯, পুরানা পল্টনে ২৭ জন আক্রান্ত হয়েছেন।

ঢাকা মহানগরীর অন্য এলাকার মধ্যে মোহাম্মদপুরে ৮১, মহাখালীতে ৭১, উত্তরায় ৬৩, তেঁজগাওয়ে ৫৫, শাহবাগে ৫১, বাড্ডায় ৪১, ধানমণ্ডিতে ৩৮, গুলশানে ৩২ ও শ্যামলীতে ২৯ জন আক্রান্ত হয়েছেন।

সোমবার স্বাস্থ্য অধিদফতর তাদের নিয়মিত অনলাইন ব্রিফিংয়ে জানিয়েছে, দেশে এ পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১০ হাজার ১৪৩ জন। শেষ ২৪ ঘন্টায় নতুন করে ৬৮৮ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। এটি এ পর্যন্ত একদিনে আক্রান্তের সর্বোচ্চ সংখ্যা। এছাড়া গত ২৪ ঘন্টায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ৫ জন মারা গেছেন। এ পর্যন্ত মারা গেছেন ১৮২ জন। এ পর্যন্ত হোম ও প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন এবং আইসোলেশনে থেকে করোনামুক্ত হয়েছেন ১ হাজার ২০৯ জন।